কুড়িগ্রামের সীমান্ত এলাকা থেকে কৃষকের  ৪৫ টি মহিষ আটকের অভিযোগ:বিজিবি বলছে ভারতীয় মহিষ

আমাদের প্রতিদিন
2024-05-24 09:03:10

কুড়িগ্রাম অফিস:

কুড়িগ্রামের উলিপুর উপজেলার সীমান্তবর্তী এলাকার চরাঞ্চলে অভিযান চালিয়ে ৪৫টি ভারতীয় মহিষ আটক করেছে বিজিবি। স্হানীয় কৃষকের দাবি এসব মহিষ তাদের পালিত। গৃহপালিত এবং হাট থেকে ক্রয় করে নিয়েআসা। নদীর বাতানে বিশ্রামে থাকা মহিষগুলো মালিকানা যাচাই বাছাই ছাড়াই বিজিবি ধরে আনে। সোমবার দুপুর থেকে কুড়িগ্রাম বিজিবি কার্যালয়ের সামনে বৈধ কাগজপত্রসহ অপেক্ষা করেও মহিষ ফেরত না পেয়ে বিকেল ৫টায় জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ সাইদুল আরীফের কাছে আয়নাল নামে এক কৃষক অভিযোগ করেন। এসময় সঙ্গে ছিলেন স্হানীয় মেম্বার শুকুর আলী।

শুকুর আলী জানান, বিজিবি ঝটিকা সফরে গিয়ে নদীর বাতানে পানিতে বিশ্রামে শুয়ে থাকা মহিষ ধরে নিয়ে আসেন। মালিকানা যাচাই করেননি। সীমান্ত এলাকা থেকে প্রায় ৫ কি: মি: দূরে এসব মহিষ জব্দ করেন তারা। এসব মহিষ কৃষকের পালিত।  চোরাই কিংবা ভারতীয় নয়।

আয়নাল জানান, তার ৬ টি মহিষ ধরে এনেছে। তিনি এসব মহিষ গত ১০/০৮/২৩ তারিখে যাত্রাপুর হাটে জনৈক হাফিজুরের কাছ থেকে  কিনেছেন প্রায় ৫ লাখ টাকায়। বড় করে বিক্রি করবেন এই আশায়। বিজিবি রাখালের কাছে কাগজ দেখতে চায় বাড়ি থেকে কাগজ নিয়ে আসার আগেই তারা মহিষ নিয়ে চলে আসেন। দুপুর থেকে বৈধ কাগজ নিয়ে ঘুরছি কিন্তু বিজিবি কোন পাত্তাই দিচ্ছেন না।

জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ সাইদুল আরীফ বলেন, সাহেবের আলগা এলাকার কয়েকজন মহিষের মালিকার দাবি নিয়ে এসেছেন। বিজিবি'র কমান্ডিং অফিসারকে অবহিত করা হয়েছে মালিকানা যাচাই করে ব্যবস্হা নেবেন বলে আশ্বস্ত করছেন।

আজ  সোমবার (১৮ সেপ্টেম্বর) সকালে উলিপুর উপজেলার সাহেবের আলগা ইউনিয়নের জাহাজের আলগা, মেকুরচর ও পার্শ্ববর্তি এলাকা থেকে এসব মহিষ আটক করা হয়। যার আনুমানিক মূল্য ৭০ লাখ টাকা। টহল অভিযানে নেতৃত্ব দেন মেজর মোঃ মাহবুবুর রহমান ও ভারপ্রাপ্ত এডজুটেন্ট সহকারী পরিচালক মো: ইউনুছ আলী।

কুড়িগ্রাম ব্যাটালিয়ন ২২ বিজিবি এক প্রেস বিজ্ঞত্তিতে জানান, দইখাওয়ার চর বিওপি সীমান্ত দিয়ে ভারতীয় গবাদি পশু চোরাচালানের মাধ্যমে বাংলাদেশে প্রবেশ করছে। পরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিজিবি ২৭ জন সমস্যের একটি টহল টিম অভিযান চালান।ওই অভিযানে উরিপুর উপজেলার দুইখাওয়ার চর বিওপি’র সীমান্ত এলাকা মেইনপিলার ১০৪৭ হতে ২০০ গজ বাংলাদেশের অভ্যন্তরে নদীর তীরবর্তী চরাঞ্চলে অবস্থান করা অবস্থায় এসব মহিষ জব্দ করা হয়।  এব্যাপারে কুড়িগ্রাম ২২ বিজিবি ব্যাটালিয়নের পরিচালক লে. কর্ণেল মো: আব্দুল মোত্তাকিম বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিজিবি’র ২৭ সদস্যের একটি টিম সীমান্ত এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৪৫টি ভারতীয় মহিষ আটক করা হয়। যার আনুমানিক মূল্য প্রায় ৭০ লাখ টাকা। এসব মহিষ অবৈধভাবে সীমান্ত দিয়ে বাংলাদেশের অভ্যন্তরে আনা হয়। আটককৃত মহিষগুলো কাস্টমে জমা দেয়ার প্রক্রিয়া চলছে।