‘আমাকে সবাই মনে রাখিয়েন, ভুলে যাইয়েন না’

আমাদের প্রতিদিন
2024-06-14 18:22:00

ফাইল ফটো

স্পোর্টস ডেস্ক:

ক্রিকেটে হাতেখড়ি হওয়ার পর থেকেই সবারই স্বপ্ন থাকে বিশ্বকাপ খেলার। কিন্তু দীর্ঘদিন ধরে স্বপ্ন দেখে যাওয়া একজনকে যদি বিশ্বকাপের আগে হঠাৎ করেই বলা হয়, তুমি আনফিট। খেলতে হলে যে কোনো পজিশনে খেলতে হবে।

১৭ বছর একটা পজিশনে খেলার পরও বিশ্বকাপে হঠাৎ করে ভিন্ন পজিশনে খেলতে হবে। তাহলে সেটা আনকোড়া কোনো খেলোয়াড় হয়তো মেনে নিবে।

কিন্তু দেশের জন্য যার অবদান সবচেয়ে বেশি। দেশের হয়ে যে একাধিক রেকর্ড গড়েছেন তাকে আপনি কিভাবে বিশ্বকাপে পজিশন চেঞ্জ করে খেলতে বলেন! কেন এমনটি বলা। এমনটি বলার অর্থই এই নয়, যে তুমি বিশ্বকাপ খেইলো না।এমন অবিচারই করা হয়েছে দেশ সেরা ওপেনার তামিম ইকবালের সঙ্গে।

মঙ্গলবার বিশ্বকাপের জন্য দল ঘোষণা করা হয় ফেসুবকে। অতীতে এমন কখনই করেনি ক্রিকেট বোর্ড। বিশ্বকাপের মতো গুরুত্বপূর্ণ টুর্নামেন্টের দল ঘোষণা করা হয় ক্রিকেট বোর্ডের ফেসবুক পেজে।

এদিন দল ঘোষণার পর প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু জানান, তামিম পুরোপুরি ফিট নয় তাই তাকে বিশ্বকাপ দলে রাখা হয়নি।

সাংবাদিকরা প্রশ্ন করেন অফ ফর্মে থাকা তরুণ ব্যাটসম্যান তানজিদ হাসান তামিমের চেয়ে অর্ধেক ফিট তামিম ইকবালকে কি বিশ্বকাপ দলে রাখা যেত না। নির্বাচকরা একই উত্তর ‍ঘুরিয়ে পেঁচিয়ে দিতে থাকেন। তাদের উত্তর প্রশ্নকারীর মনঃপূত হয়নি। যে কারণে ফের প্রশ্ন করা হয়। উত্তর সেই আগেরটাই।

দেশের হয়ে রেকর্ড সর্বোচ্চ ২৫টি সেঞ্চুরির সাহায্যে সবচেয়ে বেশি ১৫ হাজার ২৪৯ রান করেন তামিম। দেশের অসংখ্য ম্যাচ জয়ে অবদান রাখেন এই তারকা ওপেনার। অথচ বিশ্বের অন্যতম সেরা এই ওপেনারকে রাখা হয়নি বিশ্বকাপের মতো গুরুত্বপূর্ণ টুর্নামেন্টে।

দল থেকে বাদ পড়ে বুধবার সন্ধ্যায় নিজের ফেরিফায়েড ফেসবুকে এক ভিডিওবার্তায় ক্রিকেট তার সঙ্গে যে নোংরামি করেছে তা তুলে ধরেন তামিম ইকবাল। এদিন ভিডিওবার্তার শেষ দিকে তামিম বলেন, আমাকে সবাই মনে রাখিয়েন। ভুলে যাইয়েন না।