১৫ জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ - ২৯ মে, ২০২৪ - 29 May, 2024
amader protidin

রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছে বিক্ষুব্ধ পৌরবাসী

আমাদের প্রতিদিন
8 months ago
212


জরাজীর্ণ সড়ক আর ড্রেনেজ ব্যবস্থা অকার্যকর হয়ে পড়ায় বসবাসের অনুপযোগী দিনাজপুর পৌরসভা

দিনাজপুর প্রতিনিধি:

দেড়’শ বছরের প্রাচীন দিনাজপুর পৌরসভায় জরাজীর্ণ সড়ক আর ড্রেনেজ ব্যবস্থা অকার্যকর হয়ে পড়ায় দুর্বিসহ হয়ে পড়েছে এই পৌরসভার অধিবাসীদের জীবনযাত্রা। দ্রæত সড়ক সংস্কার আর ড্রেনেজ ব্যবস্থা সচল করে দিনাজপুর শহরকে বাসযোগ্য করে গড়ে তোলার দাবীতে গতকাল বৃহস্পতিবার (২১ সেপ্টেম্বর) শহরের মালদহপট্টি এলাকায় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছে বিক্ষুব্ধ পৌরবাসী।

দিনাজপুর পৌরসভার হিসাব মতে, প্রথম শ্রেনীর এই পৌরসভার মোট ড্রেনের দৈর্ঘ্য ১৭৬ কিলোমিটার। এর মধ্যে ইট দিয়ে তৈরি পাকা ড্রেন ৪৪.৪৩ কিলোমিটার, কংক্রিট দিয়ে তৈরি পাকা ড্রেন ১৪.৮০ কিলোমিটার এবং কাঁচা ড্রেন ১১৬.৯০ কিলোমিটার। এছাড়াও বক্স কালভার্ট ৩২১টি এবং পাইপ কালভার্ট ৩০টি।

সাড়ে ২৪ বর্গকিলোমিটার আয়তনের এই দিনাজপুর পৌরসভায় কাগজে-কলমে এই ১৭৬ কিলোমিটার দীর্ঘ ড্রেন থাকলেও বেশিরভাগ ড্রেনই হয়ে পড়েছে অকার্যকর। কোথাও ড্রেন ভেঙে পড়ে রাস্তার সঙ্গে মিশে গেছে, কোথাও ভরাট হয়ে গেছে, কোথাও বাড়ি নির্মাণ করতে গিয়ে ভেঙে পড়েছে ড্রেন। আর অবশিষ্ট যে পরিমাণ ড্রেন রয়েছে, তা নিয়মিত পরিষ্কার না করায় ময়লা-আবর্জনায় পানি নিষ্কাশন বন্ধ হয়ে গেছে।

ড্রেনেজ ব্যবস্থার এই দুরবস্থার কারণে শহরে বৃষ্টি হলেই বিভিন্ন এলাকায় সৃষ্টি হচ্ছে জলাবদ্ধতা। রাস্তায় জমে থাকছে পানি। কোথাও কোথাও হাঁটু পানি জমে মানুষ ও যান চলাচলে সৃষ্টি হচ্ছে প্রতিবন্ধকতা।

এই অবস্থায় গত কয়েকবছরসহ এবারের বর্ষা মৌসুমে বৃষ্টি হলেই শহরের বিভিন্ন এলাকা প্লাবিত হয়। গত বৃহস্পতিবার সকাল থেকে বৃষ্টিতে জলমগ্ন হয়ে পড়ে বিভিন্ন এলাকার রাস্তা। শহরের মালদহপট্টি এলাকার সাধনার মোড়, চাউলিয়াপট্টি মোড়, নিমনগর বালুবাড়ী, মধ্য বালুবাড়ী, বাহাদুরবাজার, কালিতলা, সুইহারী, উপশহর, বিসিক শিল্প নগরী এলাকাসহ বিভিন্ন এলাকায় সড়কের ওপর হাঁটু পানি জমে যায়। এতে রাস্তায় মানুষ ও যানবাহন চলাচলে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হয়।

পৌরসভার হিসাবমতে, দিনাজপুর পৌর এলাকায় মোট রাস্তার পরিমান ১৭৪ কিলোমিটার। এর মধ্যে পাকা রাস্তা ১২২ কিলোমিটার, আরসিসি রাস্তা ১.০২ কিলোমিটার, এইচবিবি রাস্তা ৬ কিলোমিটার এবং কাঁচা রাস্তা প্রায় ৪৬ কিলোমিটার। কাগজে কলমে পাকা রাস্তা বলা হলেও সংস্কারের অভাবে বেশীরভাগ রাস্তাই হয়ে পড়েছে জরাজীর্ণ। এসব রাস্তা দিয়ে চলাচলে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে মানুষকে। ভাঙ্গাচোরা রাস্তা আর অকার্যকর ড্রেনেজ ব্যবস্থার কারনে পৌরবাসীদের বসবাসের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে এই দিনাজপুর শহর।

এদিকে শহরের এই বেহাল অবস্থায় অতিষ্ঠ হয়ে দিনাজপুর শহরকে বাসযোগ্য করে গড়ে তোলার দাবীতে গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে শহরের মালদহপট্টি এলাকার সাধনার মোড়ে বিক্ষোভ করেছে ওই এলাকার অধিবাসীরা। তারা সড়কে বাঁশ দিয়ে বেড়িকেট স্থাপন করে বিক্ষোভ প্রদর্শণ করে। অতিসত্বর দিনাজপুর পৌর এলাকার রাস্তা ও ড্রেন সংস্কারের দাবী জানান তারা।

এ ব্যাপারে দিনাজপুর পৌরসভার মেয়র সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলম জানান, ইতিমধ্যেই দিনাজপুর শহরের বেশকিছু রাস্তার সংস্কারকাজ শুরু হয়েছে। আর পৌরসভার ড্রেনেজ ব্যবস্থার উন্নয়নে একটি মাস্টার প্ল্যান গ্রহণ করা হয়েছে। এই মাস্টার প্ল্যান অনুযায়ী ড্রেনগুলো সংস্কার ও নতুন নতুন ড্রেন নির্মাণ করা হবে। এতে পৌরবাসীর দুর্ভোগ লাঘব হবে বলে আশা করেন তিনি। তিনি আরও জানান, আমাদের মধ্যে এখনও সচেতনতার অভাব রয়েছে। অনেকেই বাড়ির ময়লা-আবর্জনা ড্রেনে ফেলে দেয়ায় ড্রেনের পানি নিষ্কাশনে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হচ্ছে। এ জন্য ড্রেনে নিক্ষেপ না করে নির্দিষ্ট স্থানে ময়লা-আবর্জনা ফেলার জন্য পৌরবাসীর প্রতি আহŸান জানান তিনি।

সর্বশেষ

জনপ্রিয়