১৫ জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ - ২৯ মে, ২০২৪ - 29 May, 2024
amader protidin

সাময়িক বরখাস্ত হওয়া চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে টিসিবির পণ্য আত্মসাতের অভিযোগ

আমাদের প্রতিদিন
7 months ago
197


উলিপুর (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি:

একের পর এক নানা অনিয়ম আর বিতর্কিত কর্মকাণ্ড সৃষ্টি করে সাময়িক বরখাস্ত হয়েছেন কুড়িগ্রামের উলিপুর উপজেলার থেতরাই ইউপি চেয়ারম্যান আতাউর রহমান আতা। বহুল আলোচিত এই চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে টিসিবির পণ্য আত্মসাতের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

ইউপি চেয়ারমান আতাউর রহমান আতা ও টিসিবির ডিলার হয়রত শাহ্ জালাল ট্রেডার্সের স্বত্বাধিকারী আবু সায়েমের যোগসাজসে ওই ইউনিয়নের ৭, ৮ ও ৯ নম্বর ওয়ার্ডের প্রায় সহস্রাধিক কার্ডধারীর টিসিবির পণ্য আত্মসাত করেছেন বলে জানা গেছে। এমন অভিযোগে ২৭ জন সুবিধাভোগী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্ট দপ্তরে লিখিত অভিযোগ করেন।

জানা গেছে, প্রতি কার্ডধারী ৪৭০ টাকা দরে প্রতি প্যাকেজে দুই লিটার সয়াবিন তেল, পাঁচ কেজি চাল ও দুই কেজি মসুর ডাল কিনতে পারবেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, থেতরাই ইউনিয়ন পরিষদের ৭, ৮ ও ৯ নম্বর ওয়ার্ডের কার্ডধারী সুবিধাভোগীদের মাঝে ২৫ সেপ্টেম্বর পরিষদ চত্বরে টিসিবির পণ্য বিতরণ করার জন্য সকলকে যথাসময়ে উপস্থিত থেকে পণ্য উত্তোলনের জন্য মাইকিং করেন। ২৫ সেপ্টেম্বর কার্ডধারী সুবিধাভোগীরা পণ্য নিতে পরিষদে গেলে চেয়ারম্যান বলেন, আজকের পরিবর্তে আগামীকাল ২৬ সেপ্টেম্বর পণ্য বিতরণ করা হবে। পরের দিন ২৬ সেপ্টেম্বর কার্ডধারীগণ উপস্থিত হলে তিনি আবার বলেন ২৭ তারিখে বিতরণ হবে এভাবে সুবিধাভোগীদের সাথে টালবাহানা শুরু করেন ওই চেয়ারম্যান। পুনরায় ২৭ তারিখে সুবিধাভোগীরা পরিষদে টিসিবি পণ্য নিতে গেলে চেয়ারমান আতাউর রহমান সবাইকে জানিয়ে দেন ওই তিন ওয়ার্ডের টিসিবি পণ্য সরকার দেয় নাই আপনারা চলে যান।

সুবিধাবঞ্চিত সুবিধাভোগী মনোয়ারা বেগম জানান, ‘একটিপ মাল তোলার জন্য হামরা তিনদিন পরিষদে আসি ঘুরি আসছি। মালতো পাইয়ে না অথচ অটো ভাড়া ফাও গেল।’ একই কথা বলেন, নুরভানু, মুসলীম, মকবুল ও মহসীন, রাশেদা, রনজিনা, রবিনা বেগম, রেনু বেগমসহ অনেকেই।

থেতরাই ইউনিয়নের টিসিবির ডিলার হয়রত শাহ্ জালাল ট্রেডার্সের স্বত্বাধিকারী আবু সায়েম বলেন, ওই ইউনিয়ন পরিষদের ৭, ৮ ও ৯ নম্বর ওয়ার্ডের সব মাল বিতরণ করা হয়েছে।

সাময়িক বরখাস্ত হওয়া ইউপি চেয়ারমান আতাউর রহমান আতা অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, টিসিবি পণ্য সকলেই পেয়েছে। অনুপস্থিত থাকায় হয়তো সাত-আট জন পায়নি।

 এ বিষয়ে ভারপ্রাপ্ত উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) কাজী মাহমুদুর রহমান বলেন, ‘নতুন ইউএনও স্যার যোগদান করে ছুটিতে গেছেন। ছুটি শেষে এসে চেয়ারম্যান ও টিসিবির ডিলারের বিরুদ্ধে অভিযোগটি খতিয়ে দেখবেন।

সর্বশেষ

জনপ্রিয়