২ আষাঢ়, ১৪৩১ - ১৭ জুন, ২০২৪ - 17 June, 2024
amader protidin

নির্বাচনী ফলাফল কক্ষ ভাংচুরের মামলায় জেলা পরিষদ সদস্য মঞ্জুর আহমেদ ডন গ্রেফতার

আমাদের প্রতিদিন
2 weeks ago
71


মোসাদ্দেকুর রহমান সাজু, ডোমার নীলফামারী:

নীলফামারীর ডোমার উপজেলায় গত ৮ই মে অনুষ্ঠিত ৬ষ্ঠ উপজেলা পরিষদের ১ম ধাপের সাধারণ নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণার সময় ফলাফল কক্ষে অতর্কিত ভাবে হামলা চালিয়ে ফলাফলের কাজে ব্যবহৃত সরঞ্জামাদীসহ অফিস ভাংচুরের মামলায় নীলফামারী জেলা পরিষদের সদস্য এবং ০৭ নং বোড়াগাড়ী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মঞ্জুর আহমেদ ডনকে গ্রেফতার করেছে ডোমার থানা পুলিশের অভিযানকারী দল।

মঙ্গলবার ২৮শে মে রাত সোয়া এগারোটার সময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ডোমার থানা পুলিশের অভিযানকারী দলটি নীলফামারী পৌরসভার কালীতলা নামক এলাকা থেকে মঞ্জুর আহমেদ ডন (৪৮) কে গ্রেফতার করেন। এর আগে এই মামলায় আরও ৭ জন আসামীকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করেন বিঞ্জ আদালত।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন উপজেলার ছোট রাউতা ফরেস্ট পাড়া এলাকার মৃত হামিদুল ইসলামের ছেলে আবু সুফিয়ান (৪০), সদর ইউনিয়নের বড় রাউতা থানাপাড়া এলাকার হায়দার আলীর ছেলে রাকিউল ইসলাম (৪০) ও চিলাই পাগলা বাজার এলাকার মৃত নুরুল হকের ছেলে মোঃ দুলু (৩৮) পশ্চিম বোড়াগাড়ি স্কুলপাড়া এলাকার আনছার আলীর ছেলে রিমুন ইসলাম (২৪), পাঙ্গা মটুকপুর ইউনিয়নের মেলাপাঙ্গা এলাকার আফজাল হোসেনের ছেলে হারুন অর রশিদ (৩০), এবং চিকনমাটি পৌর এলাকার ৬নং ওয়ার্ডের মরহুম আব্দুল হকের ছেলে সাবেক কাউন্সিলর ও পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ময়নুল হক মনু (৫৪), ছোটরাউতা শাহিপাড়া এলাকার মৃত এন্তাজুর রহমানের ছেলে মাজেদুর রহমান ওরফে পরান (২১) এবং উপজেলার ০৭ নং বোড়াগাড়ী ইউনিয়নের মৃত শওকত আলীর ছেলে মঞ্জুর আহমেদ ডন (৪৮).

নীলফামারী জেলা পরিষদের সদস্য এবং ০৭ নং বোড়াগাড়ী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মঞ্জুর আহমেদ ডনের গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করেন উক্ত মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ডোমার থানার এসআই শাকিল আহমেদ। তিনি বলেন বুধবার সকালে গ্রেফতারকৃত মঞ্জুর আহমেদ ডনকে জেলা আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য যে, গত ৮ই মে ডোমার উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণার সময় আনারস প্রতিকের পরাজিত প্রার্থী তোফায়েল আহমেদসহ তার কর্মী-সমর্থকেরা উপজেলা পরিষদের নির্বাচনী ফলাফল কক্ষে অতর্কিতভাবে হামলা ও ভাঙচুর চালায়। উক্ত ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে উপজেলা নির্বাচন অফিসের অফিস সহকারী কাম মুদ্রাক্ষরিক ফারুক হোসেন বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা ৫ থেকে ৭ শত জনকে আসামি করে ডোমার থানায় মামলা নং-০৭ তারিখ ০৯ মে ২০২৪ইং দায়ের করেন। এ রির্পোট লেখা পর্যন্ত উক্ত মামলায় মোট ০৮ জন আসামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

সর্বশেষ

জনপ্রিয়