৩ আষাঢ়, ১৪৩১ - ১৭ জুন, ২০২৪ - 17 June, 2024
amader protidin

নির্বাচনে না যাওয়ার সিদ্ধান্তে ‘অনড়’ রওশন এরশাদ

আমাদের প্রতিদিন
6 months ago
392


ঢাকা অফিস:

জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান জিএম কাদেরের অধীনে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী না হওয়ার সিদ্ধান্তে অনড় রয়েছেন দলটির প্রধান পৃষ্ঠপোষক রওশন এরশাদ।  তার অনুসারী নেতাদের মনোনয়ন না দিলে তিনি জিএম কাদেরের অধীনে জাপার প্রার্থী হবেন না বলে যে ঘোষণা দিয়েছেন, তা এখনো বলবৎ রয়েছে।

 এর আগে গত সোমবার (২৭ নভেম্বর) বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে বনানীতে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের মনোনীত প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করেন জাপা মহাসচিব মো. মুজিবুল হক চুন্নু। দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দলের প্রার্থীদের বাম ঘোষণার সময় তিনি জানান, এবার ২৮৯টি আসনে প্রার্থী দিচ্ছে দল। ময়মনসিংহ-৪ আসনে রওশন এরশাদকে প্রার্থী করলেও তার ছেলে সাদ এরশাদ বা রওশন অনুসারী কোনো নেতাকে মনোনয়ন দেয়নি জাতীয় পার্টি।

সোমবার সন্ধ্যায় রাজনৈতিক সচিব গোলাম মসীহ্ জানান, রওশন এরশাদকে অগ্রাহ্য করে একতরফাভাবে নির্বাচনের মনোনয়ন ঘোষণা করায় দলে এখন পঞ্চমবারের মতো ভাঙন দেখা দিল। এ ভাঙনের দায়ভার নিতে হবে জিএম কাদেরকে।  রওশন এরশাদ জিএম কাদেরের অধীনে নির্বাচনে প্রার্থী হবেন না।

তবে স্বতন্ত্র বা অন্য কোনো উপায়ে তিনি দলের প্রার্থী হবেন কি না তা চূড়ান্ত করা হয়নি।

দল ভাঙনের উপক্রম হলে জাতীয় পার্টির নেতা-কর্মীদের মধ্যে মঙ্গলবার সকাল থেকে নানা উৎকণ্ঠা ছড়িয়ে পড়ে।  জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদের ও মহাসচিব মো. মুজিবুল হক চুন্নু এ বিষয়ে এখনো কোনো কথা বলেননি।

মঙ্গলবার দুপুর ১২টার দিকে রওশন এরশাদের গুলশানের বাসভবনে বৈঠকে বসেন তার অনুসারী নেতারা।  সাদ এরশাদের সঙ্গে ওই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় পার্টির সাবেক মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গা, রওশন এরশাদের রাজনৈতিক সচিব গোলাম মসীহ্, জাতীয় পার্টির সাবেক সংসদ সদস্য মাসুদা এম রশিদ চৌধুরীর ছেলে ব্যারিস্টার সানজিদ রশিদ চৌধুরী।

ওই বৈঠকের পরে গোলাম মসীহ্ বলেন, ‘গতকাল জিএম কাদের ও মুজিবুল হক চুন্নু সাহেবরা একতরফাভাবে যে মনোনয়ন ঘোষণা করেছেন, সে নিয়ে কথা বলতে আজকে মিটিংয়ে বসেছিলাম।  রওশন এরশাদ বলেছেন, দলে এখনো ১০০ জনেরও বেশি যোগ্য প্রার্থী রয়েছেন, যারা নির্বাচনে শক্ত প্রতিদ্বিদ্বতা করতে পারেন।  তারা তো বলেই দিয়েছে, আমাদের কোনো ফরম দেবে না।  ম্যাডাম বলেছেন, মনোনয়ন ফরম দিলে সবাইকে দিতে হবে। তিনি বিভক্ত জাতীয় পার্টির হয়ে নির্বাচনে অংশ নিতে চান না।’

রওশন এরশাদ এখনো নির্বাচনে না যাওয়ার সিদ্ধান্তে অনড় রয়েছেন উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘তার অবস্থান স্পষ্ট। যোগ্য প্রার্থীদের মূল্যায়ন না করলে তিনি নির্বাচনে যাবেন না।’

রওশন এরশাদ দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নেবেন কি না তা এখনো স্পষ্ট হয়নি।  তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দেখা করতে চেয়ে আবেদন করেছেন।  ওই বৈঠকের পর রওশন এরশাদের রাজনৈতিক ভবিষ্যৎ স্পষ্ট হয়ে যাবে বলে মনে করেন জাতীয় পার্টি নেতারা।

সর্বশেষ

জনপ্রিয়