৪ আষাঢ়, ১৪৩১ - ১৮ জুন, ২০২৪ - 18 June, 2024
amader protidin

সব ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে নির্বাচন কমিশন

আমাদের প্রতিদিন
1 year ago
558


রসিক নির্বাচন

নিজস্ব প্রতিবেদক:

রসিকের ভোটের দিন যত ঘনিয়ে আসছে, তত নির্বাচন কমিশনের তৎপরতাও বাড়ছে। অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন আয়োজন করতে সব ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

গত শুক্রবার ও শনিবার (২৪ ডিসেম্বর) রংপুর সিটির ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে মক ভোট অনুষ্ঠিত হয়েছে। ইভিএমে ভোট দেওয়ার এই শিখন কার্যক্রম প্রতিটি ওয়ার্ডে একটি করে ভোটার শিখন কেন্দ্র স্থাপন করা হয়েছে। শিখন কার্যক্রমে ভোটাররা ইভিএমে ভোটদান সম্পর্কে স্বচ্ছ ধারণা পেয়েছেন। নির্বাচনী আচরণবিধি অমান্য করায় ১৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর জাকারিয়া আলম শিপলুর ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে নির্বাচন কমিশন।

নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গেছে, আগামী ২৭ ডিসেম্বর ভোটের দিন সবগুলো কেন্দ্রে ইভিএমে নির্বাচন হবে। এজন্য রংপুরে ৩ হাজারের বেশি ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) চলে এসেছে। প্রতিটি ভোটকেন্দ্রে সিসিটিভি ক্যামেরা স্থাপনের কাজ ইতিমধ্যেই শেষের দিকে রয়েছে।

এবারের নির্বাচনে মাঠে থাকবেন ৪৯ জন ম্যাজিস্ট্রেট। ইতোমধ্যে নগরীর ৩৩টি ওয়ার্ডে ১৬ জন ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ করা হয়েছে। গত বুধবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে এক প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে ২৫ ডিসেম্বর থেকে পাঁচ দিন আগ্নেয়াস্ত্রসহ চলাচল নিষিদ্ধ করা হয়েছে। আর নির্বাচনী এলাকায় ২৫ ডিসেম্বর রাত ১২টা থেকে ২৮ ডিসেম্বর রাত ১২টা পর্যন্ত মোটরসাইকেল চলাচলের ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে ইসি।

রংপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচন উপলক্ষে নির্বাচন কমিশনার রাশেদা সুলতানা বৃহস্পতিবার রংপুর সরকারি কলেজের অডিটরিয়ামে ভোটগ্রহণ কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণের সমাপনী অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে নিয়েছেন। এসময় ভোটগ্রহণ কর্মকর্তাদের নির্ভয়ে দায়িত্ব পালনের আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষতার সঙ্গে সম্পন্ন করতে বিভিন্ন বিভাগের সঙ্গে সমন্বয়পূর্বক নির্বাচনে সর্বোচ্চ নিরাপত্তাব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। আপনারা নির্ভয়ে দায়িত্ব পালন করবেন।

সার্বিক বিষয়ে নির্বাচন কর্মকর্তা আফতাব হোসেনের সাথে কথা হলে তিনি বলেন, তফসিল ঘোষণার পর থেকে আমরা নির্বাচনী আচরণবিধি সম্পর্কে প্রার্থীদের মধ্যে সচেতনতার বার্তা পৌঁছে দেয়া হয়েছে। প্রতীক বরাদ্দের পর তাদের নিয়ে মতবিনিময় সভা করা হয়। আচরণবিধি প্রতিপালনে সবাইকে বারবার উদ্বুদ্ধ ও ইতোমধ্যে ভোটগ্রহণ কর্মকর্তা, পোলিং এজেন্টদের প্রশিক্ষণ কর্মশালা শেষ হয়েছে।

তিনি আরোও বলেন, পাড়া-মহল্লার পাশাপাশি জনবহুল এলাকাগুলোতে ইভিএম প্রদর্শন করা হয়েছে। এখন মক ভোট কার্যক্রম সম্পন্ন হয়েছে। সবমিলিয়ে আমাদের প্রস্তুতি প্রায় সম্পন্ন। ভোটগ্রহণের আগে ও পরে নির্বাচনী অপরাধ রোধে পাঁচ দিন দায়িত্ব পালন করবেন ৪৯ জন ম্যাজিস্ট্রেট। এদের মধ্যে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ৩৩ জন এবং বিচারিক ম্যাজিস্ট্রেট থাকবেন ১৬ জন।

সর্বশেষ

জনপ্রিয়